আসামের সিএম সোনোয়াল 15.447 কিলোমিটার ডিব্রুগড় বাইপাস উদ্বোধন করেছেন

আসামের মুখ্যমন্ত্রী মো সর্বানন্দ সোনোয়াল বুধবার ডিব্রুগড়ের জপিসাজিয়ায় আয়োজিত এক কর্মসূচির সময় বুধবার বগিবেল জংশন থেকে বকুল পর্যন্ত 15.447 কিলোমিটার ডিব্রুগড় বাইপাসের উদ্বোধন করেন।

জাতীয় সড়ক ও অবকাঠামো উন্নয়ন কর্পোরেশন লিমিটেড কর্তৃক সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রকের ইঞ্জিনিয়ারিং প্রকিউরমেন্ট অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন (ইপিসি) ভিত্তিতে বগিবেল জংশন থেকে কেএম ৫৮১.00০০ থেকে কেএম ৫৯.1.১4747 পর্যন্ত জাতীয় হাইওয়ে -৩ 37 এর পুনর্নির্মাণের কাজ বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

প্রকল্পটি Rs০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছিল। 96.84 কোটি টাকা।

প্রকল্পের অংশ হিসাবে মুখ্যমন্ত্রী সোনোয়ালও নির্ধারিত প্রান্তে একটি রেলওয়ে ওভারব্রিজ উদ্বোধন করেছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সোনোয়াল বলেন, বর্তমান নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার ২০১৪ সালে ক্ষমতা গ্রহণের পর বিশেষত উত্তর-পূর্বে দেশের যোগাযোগের ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনার উদ্যোগ নিয়েছিল।

তিনি বলেছিলেন যে কেন্দ্রটি বুঝতে পেরেছে যে কোনও অঞ্চল নির্বিঘ্ন সংযোগ ব্যতিরেকে যতই সমৃদ্ধ হোক না কেন সমৃদ্ধ হতে পারে, প্রধানমন্ত্রী মোদীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রী নীতিন গডকারি নীতিগত পরিবর্তন আনেন।

ফলস্বরূপ, সোনোয়াল বলেছিলেন, আসাম এবং উত্তর-পূর্বের অন্যান্য রাজ্যগুলির সাথেও এই রুপি হয়েছে Rs সড়ক খাতে তিন লাখ কোটি টাকা বিনিয়োগ হয়েছে।

আসামের মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের সাড়ে ৩ কোটি মানুষের পক্ষে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গডকরিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

সোনোয়াল বলেছেন, কংগ্রেসের 60০ বছরের শাসনের বিপরীতে বিজেপির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার গত ছয় বছরে অভূতপূর্ব পরিবর্তন এনেছে।

তিনি চাংসগড়ির এইমস, গোগামুখের ভারতীয় কৃষি গবেষণা কেন্দ্র, জোড়হাটের ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ডিজাইন, জোগিওপা-তে মাল্টি-মডেল লজিস্টিক হাব কেন্দ্রীয় সরকারের শুভেচ্ছা ও আন্তরিকতার জন্য দায়ী করেছেন।

তিনি বলেন, ব্রহ্মপুত্রের উপর একটি একক সেতুর জন্য অসমের জনগণকে আন্দোলন করতে হয়েছিল।

তবে, এখন নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় সরকার নদীর ওপরে পাঁচটি নতুন সেতু নির্মাণের অনুমোদন দিয়েছে।

সোনোয়াল বলেন, বিজেপি নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার এবং রাজ্যের পূর্ববর্তী কংগ্রেস সরকারের পারফরম্যান্সের মধ্যে যদি কেউ তুলনামূলক বিশ্লেষণ করে তবে বিগত ৪.৫ বছরে বর্তমান রাজ্য সরকার কতটা কাজ করেছে তা স্পষ্ট হয়ে যায়।

তিনি আরও বলেছিলেন, গত ১৫ বছরে লোক নির্মাণ বিভাগ ১৫ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি সড়ক নির্মাণ করেছে, এক হাজারেরও বেশি কাঠের সেতুকে কংক্রিট ব্রিজে রূপান্তর করেছে।

তিনি আরও বলেছিলেন যে তাঁর সরকার রাজ্যের 850 টি চা বাগানে প্যাভারস ব্লক ব্যবহার করে রাস্তা তৈরি করেছে।

তিনি বলেন, ibতিহাসিক ডিব্রুগড় শহরটির সৌন্দর্য বৃদ্ধি ও উন্নয়নে ডিব্রুগড় বাইপাস সহায়তা করবে।

অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ প্রতিমন্ত্রী রামেশ্বর তেলি বলেন, কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের মধ্যে সমন্বয়হীনতার ফলে রাজ্যের যোগাযোগ ও পরিবহণে অভূতপূর্ব বিকাশ হয়েছে।