‘জয় বাংলাদেশ’ শ্লোগান দেওয়ার জন্য মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব সরমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করছে আসাম কংগ্রেস

বিরোধী দলীয় নেতা দেবব্রত সাইকিয়া অসম মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালকে ‘জয় বাংলাদেশ’ শ্লোগান দেওয়ার অভিযোগে গত বছর তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব সরমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সাহস করেছেন।

সাইকিয়া মুখ্যমন্ত্রীকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন যে সরমা গত বছরের ডিসেম্বরে আসাম বিধানসভার তলায় ‘জয় বাংলাদেশ’ বলেছিলেন।

কংগ্রেস বিধায়ক রূপজ্যোতি কুর্মি যখন নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিলের (সিএবি) বিরোধিতা করে বিধানসভায় ভাষণ দিচ্ছিলেন, তখন তিনি এই আওয়াজে চিৎকার করেছিলেন।

বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে শত্রুতা প্রচারের জন্য তুলার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থী পানমার বাজার থানায় একটি এফআইআর করেছিলেন।

তবে মামলাটি পরে এখতিয়ারের ভিত্তিতে ডিসপুর থানায় স্থানান্তর করা হয়েছে বলে সাইকিয়া জানিয়েছেন।

তিনি উল্লেখ করেছিলেন যে সরমা অভিযোগ করছেন যে এআইইউডিএফ প্রধান বদরুদ্দীন আজমলের উপস্থিতিতে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান তোলা হয়েছিল কিন্তু সরমা নিজেই ‘জয় বাংলাদেশ’ উচ্চারণ করেছিলেন আসাম বিধানসভা চেয়ে কম কোনও স্থানে।

এই শব্দগুলি কার্যনির্বাহী কার্যালয়ে রেকর্ড করা হয়েছে, তিনি বলেছিলেন।

কথিত ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগানের প্রসঙ্গে সাইকিয়া উল্লেখ করেছিলেন যে ফেসবুক কর্মকর্তারা ইতিমধ্যে ডাঃ সরমার পদকে ‘ভুয়া তথ্য’ বিভাগে রেখেছেন।

সাইকিয়া বলেছিলেন যে, ভারতের সংবিধানে শপথ নেওয়ার পরে তিনি অন্য দেশের জন্য পাওয়ান গাওয়া সত্ত্বেও ১১ মাস ধরে সরমার বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

তিনি আরও বলেছিলেন, মুখ্যমন্ত্রী যদি গণতন্ত্র এবং ভারতের সংবিধানে বিশ্বাসী হন তবে তাঁর উচিত সরমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সাহস দেখাতে হবে।